চলতি মাসের শেষের দিকেই খুলতে পারে মালয়েশিয়া শ্রমবাজার। গত বছর সেপ্টেম্বর মাসে কর্মী নেওয়া বন্ধ হওয়ার পর। আবার এই মাসে নতুন করে কর্মী নেওয়ার বিষয়ে আশাবাদী প্রবাসী কল্যানমন্ত্রী।

প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী বলেন, নতুন লোক নেওয়ার বিষয়ে এখনো নিশ্চিত ভাবে তারা কিছু না জানালেও, আগষ্ট মাসের মধ্যেই একটা কংক্রিট পাবো বলে আমি আশা করছি।

তবে অনিশ্চয়তার সৃষ্টি হয়েছে অবৈধ কর্মীদের ফেরত পাঠানোর বিষয়ে। ডিসেম্বরের মধ্যেই সকল অবৈধ কর্মী ফেরত পাঠানোর কথা জানান দেশটির মানবসম্পদ মন্ত্রী। দেশটিতে বর্তমানে প্রায় ৪ লাখ বাংলাদেশি কর্মী অবৈধ।

অবৈধ কর্মীদের ফেরত এবং নতুন কর্মী পাঠানোর বিষয়ে বিশেষজ্ঞরা বলেন, সিন্ডিকেট এর কারণেই দিন দিন বাড়ছে অবৈধ কর্মীর সংখ্যা। সিন্ডিকেটের কারণে একজন কর্মী প্রায় ৩-৪ লক্ষ টাকা খরচ করতে হয়। আর অতিরিক্ত টাকা খরচ করে আসা কর্মীরা, অতিরিক্ত বেতনের আশায় অবৈধ হয়ে যাচ্ছে। তাই এই খাতে সিন্ডিকেট বন্ধ করে সরকারের বেঁধে দেওয়া নির্দিষ্ট খরচে লোক পাঠানোর পরামর্শ দেন তারা।

এ সময় তারা মালয়েশিয়ায় বর্তমান অবস্থানরত অবৈধ বাংলাদেশী কর্মীদের বৈধ হওয়ার সুযোগ দেওয়া জন্য মালয়েশিয়ার সাথে যোগাযোগ করার কথা বলেন এবং অবৈধ কর্মীদের বৈধ করার বিষয়ে নিশ্চিত না হয়ে, নতুন কর্মী না পাঠানোর পরামর্শ দেন।